জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ঝিনাইদহ থেকে দুই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)। দুজনই নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সদস্য বলে জানিয়েছে এটিইউ। সংস্থাটি জানায়, তাঁদের কাছ থেকে বোমা তৈরির বিভিন্ন উপাদান জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার দুই তরুণ হলেন মো. ইনামুল হক (২৪) ও মো. সিরাজুল ইসলাম (২৩)। ইনাম ঝিনাইদহ সরকারি কলেজের দর্শন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। আর সিরাজুল ইসলাম এলাকায় দিনমজুরের কাজ করেন।

ঝিনাইদহ সদর থানা-পুলিশের সহযোগিতায় এটিইউর সহকারী পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে রোববার দিবাগত রাতে এই অভিযান পরিচালিত হয়। ইনামুল ও সিরাজুলের গ্রেপ্তারের বিষয়ে পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান সোমবার দুপুরে তাঁর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। দুজনের কাছ থেকে ২টি মুঠোফোন, ২৪টি সিমকার্ড, ৫টি মেমোরি কার্ড, ‘বিপুল পরিমাণ’ বৈদ্যুতিক তার, মোবাইল সার্কিট, মোডিফাইড মোবাইলের চার্জার, বাসায় তৈরি রিচার্জেবল টর্চলাইট, মোবাইলের ব্যাটারি, বৈদ্যুতিক সুইচ উদ্ধার করা হয়েছে।

এটিইউ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গ্রেপ্তার দুই তরুণ ইসলামি খিলাফত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দীর্ঘদিন ধরে জিহাদি কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল। ইনামুল হক পুরোনো মুঠোফোনের ব্যাটারি, বৈদ্যুতিক তার এবং বোমা তৈরির অন্য উপাদানগুলো দিয়ে শক্তিশালী বিস্ফোরক তৈরির বিষয় নিয়ে গবেষণা করছিল।