মাথায় চুল কমে এসেছে। দাড়িতে পাক ধরেছে। স্রেফ এই দুটি কারণই কি একজন ক্রিকেটারের অবসর ঘোষণার জন্য যথেষ্ট! সম্প্রতি বেশ কিছু ছবিতে দেখা যাচ্ছে ধোনির সাদা চুল, দাড়ি। তার পর থেকে অনেকেই ধোনির অবসর নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। অনেকে বলেছেন, সাদা দাড়ি নিয়ে একজন ক্রিকেটার জাতীয় দলের জার্সিতে খেললে মানায় না। বেশ কিছু প্রাক্তন ক্রিকেটার বলেছেন, ধোনির এবার অবসর নেওয়া উচিত। না হলে নতুন ক্রিকেটাররা সুযোগ পাবে কী করে! তবে ধোনি নাছোড়বান্দা। তিনি অবসর নিতে রাজি নন। আইপিএল খেলার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে শুরু করেছেন। জেএসসিএ স্টেডিয়ামের ইন্ডোরে ধোনি প্র্যাকটিস করছেন।

ধোনির অবসর জল্পনা গত কয়েক মাস ধরেই চলছে। আর কি জাতীয় দলের জার্সিতে দেখা যাবে এমএসডিকে! এটাই এখন আসল প্রশ্ন। তিনি যে আইপিএল খেলবেন সেটা তো জানাই ছিল। তবে এবার সঞ্জয় মঞ্জরেকর যা বললেন তাতে নিশ্চিত হতে পারেন, ধোনি আবার জাতীয় দলের জার্সি গায়ে খেলবেন। কারণ, সঞ্জয়ের কথামতো ধোনি তাঁকে জানিয়েছেন, যতদিন এমএস নিজেকে ফিট বলে মনে করবেন ততদিন তিনি অবসর নেবেন না। মাঞ্জরেকর বলছিলেন, বিরাট কোহলির রিসেপসন-এর দিন ধোনির সঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর সুযোগ হয়েছিল আমার। ধোনি আমাকে সেদিনই বলেছিল, ‘যতদিন ও টিম ইন্ডিয়ার সবচেয়ে দ্রুত গতির দৌড়বিদ থাকবেন, ততদিন পর্যন্ত তিনি খেলা চালিয়ে যাবেন। ধোনি নিজেকে এখনও ফিট বলে মনে করে। আর ও সত্যি ফিট। আইপিএলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করতে পারে ও। তার পর আবার জাতীয় দলে ওর কামব্যাক হতে পারে।’

একটি বেসরকারি চ্যানেলের আয়োজিত এক অনু্ষ্ঠানে মাঞ্জরেকর কথাগুলি বলেন। দিনকয়েক আগে চেন্নাই দলে ধোনির সতীর্থ সুরেশ রায়না জানিয়েছিলেন, এ্মএসডি আইপিএল খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন। এবার হেলিকপ্টার শটের ফুলঝুড়ি ছুটবে। মঞ্জরেকরও এদিন রায়নার সেই কথা সমর্থন করলেন। তিনিও মনে করেন, দুবাইয়ের পরিবেশ, পরিস্থিতিতে ধোনি আবার নিজেকে সেরা উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারবেন। ফলে এখনই ধোনির অবসরের আশা না করাই ভাল।