আইফোন বাজারে আসলে শুরু হয় নানান আলোচনা-সমালোচনা। প্রতিযোগিতা শুরু হয় নতুন ভার্সন কেনার জন্য। এর জন্য কত ঘটনাই না ঘটে। তেমনি এক ঘটনা ঘটে চীনে। এক চীনা কিশোর আইফোন কেনার জন্য সত্যি সত্যি নিজের কিডনি বেচে দিয়েছিলেন। ওয়াং সাংকুন নামের সে কিশোরের বয়স এখন ২৫ কি ২৬।

ভাইস সাময়িকীর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১১ সালে ওয়াংয়ের বয়স ছিল ১৭। বাড়ি চীনের আনহুই প্রদেশে। একদিন তার কী মনে হলো, প্রায় ৩ হাজার ২৭৩ ডলারের বিনিময়ে ডান পাশের কিডনিটি বিক্রি করে দিলেন। সে টাকা দিয়ে একটি ‘আইপ্যাড ২’ মডেলের ট্যাব এবং একটি ‘আইফোন ৪’ মডেলের স্মার্টফোন কিনেছিলেন তিনি। ওই সময় ওয়াং বলেছিলেন, ‘দুটি কিডনি দিয়ে কী হবে? একটিই যথেষ্ট।’ একটি কিডনি নিয়ে এখন বেশ বিপদেই আছেন ওয়াং সাংকুন।

এক অনলাইন চ্যাটরুমে মানব–অঙ্গ কালোবাজারিদের কাছ থেকে একটি বার্তা পান তিনি। বার্তায় বলা হয়েছিল, তিনি চাইলে শরীরের অঙ্গ বেচে তিন হাজার ডলারেরও বেশি আয় করতে পারেন। সে সময় আইফোন হাতে তোলার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন ওয়াং। অফারটি পছন্দ হয়েছিল তার।

এর দিন কয়েক পর দেশটির হুনান প্রদেশের এক হাসপাতালে ১৭ বছরের ওয়াংয়ের শরীরে অবৈধ অস্ত্রোপচার করা হয়। বের করে নেওয়া হয় ডান কিডনি। ব্যাপারটি অভিভাবকদের না জানিয়েই করেছিলেন ওয়াং।

পরে ওয়াংয়ের হাতে দামি আইফোন দেখে তার মায়ের সন্দেহ হয়। জিজ্ঞাসা করার পর তার মুখ থেকে বেরিয়ে আসে অস্ত্রোপচারের কথা। এরপর অবৈধভাবে অঙ্গ বেচাকেনার জন্য গ্রেপ্তার হয় নয়জন, পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ওয়াংয়ের অস্ত্রোপচার করায় কয়েক মাসের মধ্যেই বাঁ কিডনিতে সংক্রমণ দেখা দেয়। অস্ত্রোপচারের পর প্রয়োজনীয় সেবা ও বিশ্রাম না পাওয়াও একটি বড় কারণ। পরে তার অবস্থার এমনই অবনতি হয় যে এখন পুরোপুরি শয্যাশায়ী। নিয়মিত ডায়ালাইসিস ছাড়া জীবন বিপন্ন।

In the iPhone market, various discussions and criticisms actually started. The competition started to buy a new version. How many incidents do not happen for this. A similar incident happened in China. A Chinese teenager actually sold his kidney to buy an iPhone. The teenager named Wang Sankun is now 25 or 26 years old.

According to a report in Vice Magazine, Wang was 18 in 2011. Home in China’s Anhui Province. One day, he sold his right kidney for about প্রায় 3,273. He used the money to buy an iPad 2 tab and an iPhone 4 smartphone. At the time, Wang said, ‘What will happen with two kidneys? One is enough. ‘Wang Sankun is now in great danger with a kidney.

In an online chat room, he received a message from human organ black marketeers. The message said that if he wanted, he could earn more than three thousand dollars by selling body parts. At that time, Wang was dreaming of getting an iPhone. He liked the offer.

A few days later, 18-year-old Wang was illegally operated on at a hospital in the country’s Hunan province. The right kidney was taken out. Wang did this without informing the parents.

Later, Wang saw an expensive iPhone in his hand and his mother became suspicious. After asking, the word of surgery came out of his mouth. After that, nine people were arrested for selling organs illegally and charges were framed against five people.

Wang underwent surgery in an unhealthy environment and developed a left kidney infection within a few months. Lack of necessary services and rest after the surgery is also a big reason. Later his condition deteriorated to such an extent that he is now completely bedridden. Life is endangered without regular dialysis.